অসহায় মানুষকে সহায়তা প্রদান করলেন হিরো আলম।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:০২ PM, ০৭ অগাস্ট ২০২০

 

বগুড়ার বিভিন্ন এলাকার ছিন্নমূল মানুষের নিকট নিজ বাড়িতে রেঁধে খাবার নিয়ে যান।
হিরো আলম বলেন, আমি আগে এতো চিন্তা করতে পারতাম না। ধীরে ধীরে মানুষ যখন আমাকে হিরো আলম হিসেবে চিনতে শুরু করে, রাস্তায় আমাকে দেখলে ভিড় করে তখনই আমার মাথায় নতুন নতুন চিন্তা কাজ করতে শুরু করে। মানুষের জন্য ভাবতে শুরু করি। ঈদে আমার মনে হয়েছে অনেক মানুষ ভালো খাবার পায়নি। অনেক মানুষ না খেয়েও থেকেছে। আমার কিছু করার ইচ্ছা করে। কিন্তু আমার তো অনেক টাকা নাই।
তিনি বলেন, ‘তারপরেও আমার মনে হলো আমি এই ঈদে কিছু মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করি। ঈদের আগে সারিয়াকান্দির যমুনার ভাঙন ও বন্যা কবলিত এলাকায় গিয়েছি। ঈদের তৃতীয়দিন বগুড়ার রেল স্টেশন এলাকায়, বিভিন্ন বস্তি, ফুটপাত, অনাথ আশ্রম এলাকায় গিয়েছি। নিজ হাতে তাদের মুখে খাবার তুলে দিয়েছি। কিছু শুকনো খাবার দিয়ে
এসেছি। কোথাও আর্থিক সাহায্য করেছি। খুব সামান্য, বলার মতো কিছু না। একদিন অনেক টাকা হলে হয়তো সব অসহায়দের পাশে আরো বেশি করে দাঁড়াতে পারবো।’
বগুড়ার এরুলিয়া ইউনিয়নের এরুলিয়া গ্রাম থেকে উঠে আসেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আলোচনা ও সমালোচনার কেন্দ্রে পরিণত হয়ে হিরো আলম ওরফে আশরাফুল আলম ঢাকায় চলে আসেন। স্থানীয়ভাবে তিনি ডিশ আলম হিসেবেও পরিচিত। কেননা এরুলিয়ায় তাঁর কেবল নেটওয়ার্কের ব্যবসা রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :