ইতালির এক গ্রামে ৮ বছর পর জন্ম হল এক শিশুর।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:০০ PM, ২৩ জুলাই ২০২০

ইতালির পুরোনো প্রথা হলো, গ্রামে কোনো শিশুর জন্ম হলে সে বাড়ির দরজায় রিবন বেঁধে সবাইকে তা জানান দেওয়া। ছেলেশিশু হলে নীল রিবন আর মেয়ে হলে গোলাপি। ২০১২ সালের পর আবার মোরতেরোন গ্রামে রিবন সাজানোর সময় এলো।

নতুন বাসিন্দা ডেনিসের আগমনে ইতালির ক্ষুদ্রতম গ্রামটির লোকসংখ্যা বেড়ে হলো ২৯ জন। যে বাড়ির শিশু, তার দরজায় রিবন দিয়ে সাজিয়ে পুরো ব্যাপারটার মধ্যে একটা উৎসবের আমেজ এনেছেন গ্রামবাসীরা। সবাই উৎফুল্ল। নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে ডেনিস।

ডেনিসের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে লেক্কোর আলেসান্দ্রো মানজোনি হাসপাতালে ডেনিসের জন্ম হয়েছে। ওজন দুই কেজি ৬০ গ্রাম। মা ও শিশু সুস্থ আছে।

সে প্রথা মেনেই ডেনিসের মা-বাবা সারা ও মাত্তেও তাঁদের বাড়ির দরজায় নীল রঙের রিবন লাগিয়ে ওপরে লিখে দেন ডেনিসের নাম।

সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ খবর জানিয়েছে। ইতালির লোম্বারডিতে পাহাড়ের ওপর ছোট্ট গ্রাম মোরতেরোন। আট বছর পর ওই গ্রামে কোনো শিশুর জন্ম হলো।

ডেনিসের মা সারা বলেন, মহামারির সময় গর্ভবতী হওয়ার একটা বিরল অভিজ্ঞতা পেরোলাম। আশপাশ লকডাউন হয়ে ছিল। বাড়ির বাইরে বেরোতেই পারিনি।

আমার সন্তানসম্ভবা হওয়ার খবর পেয়েও স্বজনরা দেখা করতে আসতে পারেননি। সন্তান জন্ম দিয়ে আমি ভীষণ খুশি। ভালো লাগছে গ্রামের জনসংখ্যা আরেকজন বাড়ল।

মোরতেরোনের মেয়র আন্তোনেল্লা ইনভারনিজি বলেন, ‘আমাদের গোটা গ্রামের কাছেই এটা একটা সত্যিকারের আনন্দঘন মুহূর্ত।’

আপনার মতামত লিখুন :