ঈদে বেড়ে যাবে সংক্রমণ।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:১৩ PM, ৩১ জুলাই ২০২০

ঈদে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে থাকার নির্দেশনা রয়েছে। পোশাক কর্মীদেরও বাড়ি ফিরতে মানা করা হয়েছে। কিন্তু এসব নির্দেশনা মানা হচ্ছে কিনা তার তদারকি না থাকায় অনেকে ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল থেকে বাড়ি যাচ্ছেন।

মার্কেট এবং বিপণিবিতানে মানা হয়নি স্বাস্থ্য নির্দেশিকা। মার্কেটে প্রবেশের সময় তাপমাত্রা মাপা ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে শুরুতে কিছুটা চেষ্টা থাকলেও সর্বশেষ কিছুদিন ঢিলেঢালা ভাব দেখা গেছে। এ ছাড়া দোকানে দোকানে ক্রেতাদের ভিড় দেখা গেলেও তাদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি অনেকেই মানেনি।

ঈদুল আজহার ছুটিতে বেড়ে যেতে পারে করোনার সংক্রমণ। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আগেই এমন শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। এজন্য কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রয়োগের পরামর্শ দেয়া হয়েছিল। আদতে বিশেষজ্ঞদের এমন পরামর্শ গ্রহণ করে বাড়তি কোনো ব্যবস্থাই নেয়া হয়নি। ফলে সংক্রমণ বাড়ার ঝুঁকি বেড়েছে বহুগুণ।

এক সঙ্গে অনেক মানুষের যাতায়াতে সড়কে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বেড়েছে। এ ছাড়া পর্যাপ্ত যানবাহন না পাওয়ায় অনেকে বিকল্প যানে গাদাগাদি করে নিজ নিজ গন্তব্যে যাচ্ছেন। এতে বাড়ছে করোনা ঝুঁকি।
ঈদকে সামনে রেখে ঈদের আগের কয়েকদিন বিভিন্ন মার্কেট ও বিপণিবিতানেও ছিল ক্রেতাদের ভিড়।

করোনার ঝুঁকি বাড়িয়েছে কোরবানির পশুর হাট। সারা দেশেই পশুর হাট বসেছে। এসব হাটে খুব একটা মানা হয়নি স্বাস্থ্যবিধি। ভিড়ের মধ্যেই পশু কেনাবেচা হচ্ছে সারা দেশে। তবে কোথাও কোথাও কিছু ব্যতিক্রমও দেখা যাচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :