কেজিতে পিঁয়াজের দাম ১২০ টাকা

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:১৪ PM, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

গতবছর ভারতের হঠাৎ রফতানি বন্ধ করে দেওয়ায় বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম পাগলা ঘোড়ার মতো ছুটতে থাকে। দাম কমাতে সরকারের সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। জনগণের রোষানলে পড়ে সরকার। লাগাম টেনে ধরার আগ পর্যন্ত ৩০ টাকার পেঁয়াজ গিয়ে ঠেকে ৩০০ টাকায়। নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যটি কিনতে বাংলাদেশের মানুষের নাভিশ্বাস চরমে ওঠে। আবারও একই অবস্থার পুনরাবৃত্তি ঘটলো। কোনো কিছু না জানিয়েই ভারত হঠাৎ করে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে। দেশের বাজারে ৪০ টাকার পেঁয়াজ হু হু করে বেড়ে এক সপ্তাহের ব্যবধানে সেঞ্চুরি করেছে। রাজধানীর কোথাও কোথাও খুচরা বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা কেজি দরে। হঠাৎ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ ও স্বল্প আয়ের মানুষ। পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের আগাম কোনো তথ্য নেই সরকারের হাতে। এতে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। তারা বলছেন, ভারত কূটনৈতিক নিয়ম-নীতির কোনো তোয়াক্কা না করে বাংলাদেশের মানুষকে পনবন্দী করছে। বন্ধু দেশের এমন আচরণে হতবাক বাংলাদেশের মানুষ।
জানা গেছে, ভারতের রফতানি বন্ধ-এমন খবরে হঠাৎ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। এক সপ্তাহ আগে ছিলো ৪০ টাকা। দুই দিন আগেও নিত্যপণ্যটির দাম ছিল ৫০ থেকে ৬০ টাকা। কিন্তু এখন খুচরা বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা।
বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কিছু অসৎ ব্যবসায়ী সবসময় সুযোগের অপেক্ষায় থাকেন। পেঁয়াজ নিয়ে এখন কারসাজি চলছে। ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ায় দেশের মজুতদার ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা হঠাৎ দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। এমন অবস্থায় সাধারণ ভোক্তারা আতঙ্কিত হয়ে চাহিদার চেয়ে বেশি পেঁয়াজ কেনা শুরু করে দিয়েছেন। সবমিলিয়ে খুচরা বাজারে ৬০ টাকার পেঁয়াজ এক লাফে ১২০ টাকায় উঠেছে। তবে চাষি ও ব্যবসায়ী পর্যায়ে পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানির জন্য ব্যবসায়ীরা এলসি খুলছেন। পেঁয়াজ নিয়ে এবার আগের মতো অস্থির হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলছেন খাত সংশ্লিষ্টরা ব্যবসায়ী ও আমদানিকারকরা।
রাজধানীর শ্যামবাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের নেতা মেসার্স আলী ট্রেডার্সের পরিচালক মো. শামসুর রহমান জানান, ভারতের রফতানি বন্ধ-এমন খবর আসার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন জেলার মোকামের ব্যবসায়ী ও চাষিরা পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। আবার ক্রেতারাও চাহিদার তুলনায় পেঁয়াজ বেশি কেনা শুরু করেছেন। হঠাৎ আমদানি বন্ধ ও চাহিদা বাড়ায় বাজারে অস্থির অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। গত তিন দিনে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়ে গেছে।
গতকাল বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দেশী পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা। আমদানি করা ভারতের পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। গত সোমবারও দেশি পেঁয়াজের কেজি ছিল ৬০ টাকা এবং আমদানি করা পেঁয়াজের কেজি ছিল ৫০ থেকে ৫৫ টাকা।

আপনার মতামত লিখুন :