গাজীপুরের ফার্মাসি গুলোতে নেই লাইসেন্স

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:৪৩ PM, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

গাজীপুরে বর্তমানে চালু থাকা ৬৫ শতাংশ ফার্মাসিরই নেই কোনো ড্রাগ লাইসেন্স। বেশিরভাগ ওষুধের দোকানেই নেই কোনো সনদপ্রাপ্ত ফার্মাসিস্ট। এতে একদিকে যেমন অধিদপ্তরের নজরদারির বাইরে রয়েছে এসব ফার্মাসি, তেমনি চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র না বুঝে রোগীদের ভুল দেওয়া বা ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই অ্যান্টিবায়োটিকসহ বিভিন্ন স্পর্শকাতর ওষুধ দেওয়ায় বাড়ছে জেলার বাসিন্দাদের স্বাস্থ্যঝুঁকি।

গাজীপুর ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর ও কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সূত্রে জানা যায়, গাজীপুরে পাঁচটি উপজেলা রয়েছে। মহানগরসহ এসব উপজেলার বিভিন্ন পাড়া মহল্লা, হাট-বাজার ও অলি-গলিতে ফার্মাসি রয়েছে প্রায় ৭ হাজার। এর মধ্যে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছর পর্যন্ত ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর থেকে ড্রাগ লাইসেন্স নিয়েছে মাত্র ২ হাজার ৪৩৭টি। যা মোট ফার্মাসির তুলনায় মাত্র ৩৫ শতাংশ। অর্থাৎ বাকি ৬৫ শতাংশ ফার্মাসিই চলছে লাইসেন্স ছাড়া।

আরো জানা যায়, ফার্মাসিতে বাধ্যতামূলক একজন সনদপ্রাপ্ত ফার্মাসিস্ট রাখার নিয়ম থাকলেও গাজীপুরের বেশিরভাগ ওষুধ দোকানেই তা নেই। ফলে অল্প শিক্ষিত লোকবল দিয়েই চলছে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এতে অনেক সময়ই চিকিৎসকের দেওয়া ব্যবস্থাপত্র না বুঝে রোগীদের দেওয়া হচ্ছে ভুল ওষুধ।

আপনার মতামত লিখুন :