দেশে ফিরছেন রায়হান

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:০২ PM, ২২ অগাস্ট ২০২০

 

বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলার ছেলে রায়হান। তিনি প্রবাসী হিসেবে কাতারে বসবাস করতেন। কাতারে বাংলাদেশীদের লকডাউনের অবস্থা নিয়ে কথা বলায় বিপদে পড়তে হয় তাকে। কাতারের পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। দুইবার তাকে রিমান্ডে নেয়া হয়।

ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে (এফএমটি) শুক্রবার তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে তাকে ফ্লাইটে তুলে দেয়া হবে।

দেশটির অভিবাসন বিভাগের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ সময় রাত সাতটায় তাকে বিমানবন্দরে নেয়া হবে।

এর আগে গত বুধবার রায়হানের আইনজীবীরা জানান, তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ গঠন করা হয়নি।

৩ জুলাই আল-জাজিরায় প্রচারিত ওই প্রামাণ্যচিত্রে শুধু বাংলাদেশ নয়, আরো কয়েকটি দেশের অভিবাসীরা নিজেদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। প্রায় ২৬ মিনিটের ভিডিওটিতে সাড়ে পাঁচ মিনিটের দিকে রায়হান কবিরকে দেখা যায়।

উপস্থাপককে নিজের মোবাইলে একটি ভিডিও দেখান তিনি। সেই ভিডিওতে মালয়েশিয়ান প্রশাসনের কিছু পদক্ষেপের দৃশ্য ছিল। দেখা গেছে, ৬০০ মানুষকে তারা ট্রাকে করে অন্য কোথাও নিয়ে যাচ্ছেন।

রায়হানের অভিযোগ, ‘তারা আমাদের ফাঁদে ফেলেছে। ওষুধ, খাবারসহ সবকিছু দিয়েছে।

কিন্তু কেউই বুঝতে পারেনি গ্রেপ্তার করা হবে। তারা খুনি নয়, সন্ত্রাসী নয়। শুধু কাগজপত্রহীন অভিবাসী। ’
রায়হানের অবশ্য কাগজপত্রের কোনো সমস্যা ছিল না। কিন্তু প্রামাণ্যচিত্র প্রচারের পর তার পারমিট বাতিল করা হয়। তার বিরুদ্ধে ‘মালয়েশিয়ার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার’ অভিযোগ আনা হয়। এরপর সন্ধান চেয়ে ৬ ‍জুলাই নোটিশ জারি করে সেখানকার পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় ২৪ জুলাই।

আপনার মতামত লিখুন :