নরসিংদি জেলার মনোহরদীতে সাংবাদিকের পিতাকে মারধর।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৫৭ PM, ১১ অগাস্ট ২০২০

 

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সাংবাদিক মুনাওয়ার রিয়াজ মুন্না বলেন, সন্ধ্যায় মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বাড়িতে ফিরছিলেন আমার বাবা। পথিমধ্যে লেবুতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকিরের চাচাতো ভাই মোয়াজ্জেম আকন্দ আমার বাবার গতিরোধ করে।

এসময় হারুন আকন্দ ও তার ভাতিজা তন্ময় আকন্দ লাঠি ও রড দিয়ে তাকে উপর্যুপরি আঘাত করে এবং অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে। এঘটনার পরপর লেবুতলা ইউপি চেয়ারম্যান জাকির আকন্দ শতাধিক লোকজন নিয়ে আমার আহত বাবাকে হাসপাতালে নিতে বাধা ও বাড়ি ঘেরাও করে বিভিন্ন হুমকি-ধামকি দেয়। পরে রাত ৯ টায় পুলিশের সহায়তায় তাকে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

সোমবার ১০ আগস্ট সন্ধ্যায় নামাজ আদায় করে বাড়ি ফেরার পথে কলেজ শিক্ষককে মারধর করা হয়। বর্তমানে তাকে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

হামলার শিকার ওই শিক্ষকের নাম অধ্যাপক রিয়াজ উদ্দিন। তিনি মনোহরদী সরকারি কলেজের অধ্যাপক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির অর্থ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এবং জাতীয় দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের চবি প্রতিনিধি ও ভয়েসবিডি২৪.কমের সাব এডিটর মুনাওয়ার রিয়াজ মুন্নার পিতা।

নরসিংদী জেলার মনোহরদীতে সংবাদ পরিবেশনের জেরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের ইন্ধনে এক সাংবাদিকের কলেজ শিক্ষক পিতাকে মারধর করা হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহতবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এই ঘটনায় রাতে আমি মনোহরদী থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

আপনার মতামত লিখুন :