নৌকাডুবিতে তিন জন নিখোঁজ।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:২৩ PM, ০৪ অগাস্ট ২০২০

 

রোববার বিকালে উপজেলার চৌগাঙ্গা ইউনিয়নের মাগুরী এলাকার ধনু নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ হওয়ার পর আজ সোমবার সকালে এই তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন নববধূ সুমাইয়া শিশু হীরামনি ও বৃদ্ধ হাসান আলী। নিহতরা উপজেলার চৌগাঙ্গা ইউনিয়নের মাওরা গ্রামের বাসিন্দা।

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনায় যাত্রীবাহী একটি ইঞ্জিনচালিত ছোট নৌকা ডুবে নিখোঁজ হওয়ার পরদিন একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয় ডুবুরি দল।

নিহতের স্বজনরা জানান, হাসান আলীর পরিবারের ১২ জন সদস্য রোববার দুপুরে ইঞ্জিনচালিত নৌকায় মাওরা গ্রাম থেকে পাশে কুর্শি গ্রামে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে ঝড়ো বাতাসে নৌকাটি ধনু নদীতে ডুবে যায়। অন্যরা সাঁতরিয়ে তীরে উঠতে পারলেও হাসান আলী, হীরামনি ও সুমাইয়া নিখোঁজ হন।

এর মধ্যে নিহত হাসান আলী মাওরা গ্রামের মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে। পরিবারের বাকি দুজনের মধ্যে নিহত নববধূ সুমাইয়া নিহত হাসান আলীর নাতি মো. মোখলেস মিয়ার স্ত্রী আর শিশু হীরামনি নিহত হাসান আলীর বড় মেয়ে নূরুন্নাহারের মেয়ে। হীরামনির বাবার নাম বরজু মিয়া।

অন্যদিকে সুমাইয়া পার্শ্ববর্তী কুর্শি গ্রামের খোকন মিয়ার মেয়ে। মাত্র মাস দেড়েক আগে মোখলেস মিয়ার সাথে সুমাইয়ার বিয়ে হয়।

আপনার মতামত লিখুন :