নড়বড়ে ওভারব্রিজে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন জনগণ

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:২২ PM, ২১ জুলাই ২০২০

নির্মাণের মাত্র পাঁচ বছরের মধ্যেই সিঁড়ি ও পাটাতন ক্ষয়ে নড়বড়ে হয়ে গেছে ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ড এলাকার লোহার ফুট ওভারব্রিজটি। ওই নড়বড়ে ফুট ওভারব্রিজ সংস্কারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নেই কোনো তৎপরতা। এতে যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

২০১৫ সালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কটি চার লেন প্রকল্পের আওতায় এলে ত্রিশাল উপজেলার ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় ফুট ওভারব্রিজটি। নির্মাণের পর অনেক দিন পর্যন্ত তা ব্যবহারে শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষের অনীহার প্রকাশ মেলে। সম্প্রতি ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে মানুষের আগ্রহ বাড়লেও পথচারীদের চলাচলের সময় নড়বড় করে ওভারব্রিজটি। মরিচায় ক্ষয় হয়ে কয়েক মাস ধরে ব্রিজটির বেশ কয়েকটি সিঁড়ি ও পাটাতনের জোড়া খুলে গেছে। নড়বড়ে ওই ফুট ওভারব্রিজ সংস্কারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নেই কোনো তৎপরতা।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় বেশিরভাগ সময় ফাঁকা পড়ে থাকে ফুট ওভারব্রিজটি। অথচ নিচেই চলন্ত গাড়ি রোধ করে রাস্তা পার হচ্ছেন অসংখ্য মানুষ। প্রতিদিনই নারী, শিশু ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার হাজার হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পার হচ্ছেন ব্যস্ততম ওই মহাসড়ক।

স্থানীয় সচেতন মহল মনে করছেন, বিভিন্ন ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা রোধে খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে ফুট ওভারব্রিজটি সংস্কার অত্যন্ত জরুরি। কেননা ওই ব্রিজটি ব্যবহার করে উপজেলা পরিষদ, থানা, উপজেলা ভূমি অফিস, পৌরসভা, পৌর বাজারসহ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি নজরুল ডিগ্রি কলেজ, মহিলা ডিগ্রি কলেজ, সরকারি নজরুল একাডেমি, নজরুল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আব্বাছিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, শুকতারা বিদ্যানিকেতন, রাহেলা হযরত মডেল স্কুলসহ অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে হয়।

আপনার মতামত লিখুন :