পাকিস্তান সরকার চিকিৎসা ও শিল্পকাজে গাঁজা ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৪৫ PM, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

সরকারের এই সিদ্ধান্ত জনগণকে আশাহত করলেও অনেকে একে স্বাগত জানিয়েছেন। এ ধরনের সমস্যার বাস্তবভিত্তিক সমাধানের পথে পাকিস্তানের অগ্রসর হওয়ার প্রশংসা করেন তারা।

পাকিস্তান মুক্তমনা পথ অনুসরণের চেষ্টা করছে এবং চিকিৎসা ক্ষেত্রে গাঁজা ব্যবহারের সম্ভাবনা উড়িয়ে না দিয়ে বরং সব ধরনের রোগীকে উপকৃত হওয়ার সুযোগ দিয়েছে।

চলতি বছরের গোড়ার দিকে মাদক নিয়ন্ত্রণ প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আফ্রিদি এক ভিডিও বার্তায় বলেছিলেন যে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে আফিম ও অন্যান্য মাদক থেকে ওষুধ তৈরির কারখানা স্থাপন করতে চান। ওই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছিলো।

পাকিস্তান সরকার চিকিৎসা ও শিল্পকাজে গাঁজা ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে। এখন থেকে দেশটির জনগণ চিকিৎসার উদ্দেশ্যে গাঁজা ব্যবহার করতে পারবেন।

কেন্দ্রিয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী এক টুইটে পাকিস্তানের শিল্পক্ষেত্রে গাঁজা ও গাঁজা-সংশ্লিষ্ট পণ্যের ব্যবহার ও পাকিস্তান কিভাবে গাঁজা থেকে লাভবান হতে পারে তা তুলে ধরেন।

কেন্দ্রিয় মন্ত্রিসভা প্রথমবারের মতো চিকিৎসা ও শিল্পক্ষেত্রে ব্যবহারের জন গাঁজার লাইসেন্স প্রদানের বিষয়টি অনুমোদন করেছে। এই অনুমোদনের পর এতদিন আটক করা গাঁজা পুড়িয়ে না ফেলে ওষুধ তৈরিতে ব্যবহার করা হবে। টুইটে মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী অনুমোদনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আপনার মতামত লিখুন :