পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সহপাঠীদের নিয়ে ঘুরতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছে দুই কলেজছাত্রী।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:১১ PM, ১৫ অগাস্ট ২০২০

 

দুপুরের সময় তাদের বহনকারী ইজিবাইক উপজেলার উত্তর মিঠাখালী নামক স্থানে নষ্ট হয়। এ সময় স্থানীয় উত্তর মিঠাখালী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত বিডিআর সদস্য খলিলুর রহমানের পুত্র মাদকসেবী রানা , কালামের পুত্র মারুফ, ছিদ্দিক ফরাজীর পুত্র সোহাগ তাদের জিম্মি করে।

এরপর আর্শেদ মিয়ার বাড়ির সম্মুখে সরকারি পুকুর পাড়ে নিয়ে দুই ছাত্রীকে মারধর করে মোবাইল, টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। পরে নির্জনে নিয়ে তিনজনে মিলে ওই মেয়ে দুটির ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। এরপর ওই কলেজছাত্রীর অভিভাবকদের কাছে মোবাইলে ফোন দিয়ে ১৫ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সহপাঠীদের নিয়ে ঘুরতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছে দুই কলেজছাত্রী। বৃহস্পতিবার বিকেলে ধর্ষিতা দুই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ধর্ষিতা ওই দুই কলেজছাত্রী জানায়, বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা গ্রামের ওই দুই কলেজছাত্রী সকালে স্থানীয় হলতা ডৌয়াতলা ওয়াজেদ আলী খান ডিগ্রি কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য কলেজে কাগজপত্র জমা দেয়। জমা শেষে দুপুরে প্রতিবেশী সহপাঠী সোহাগ খান ও শাহাদাৎকে নিয়ে মঠবাড়িয়া শহর হয়ে ভান্ডারিয়ার হরিণপালা ইকোপার্কে ঘুরতে যাচ্ছিল।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ.জ.ম মাসুদ্দুজামান মিলু জানান, এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :