প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে শহর ছেড়ে যাওয়া শিশুদের পড়ালেখার।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:১৩ PM, ২৩ জুলাই ২০২০

মানুষের জীবনযাপনের স্বাভাবিকতা বিঘ্নিত হয়েছে। অর্থনীতিসহ অন্যান্য খাতেও নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এমন অবস্থায় শিক্ষা খাতেও নেমে এসেছে আশঙ্কাজনক বাস্তবতা। আর দেশেও ক্রমাগত বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বলার অপেক্ষা রাখে না, এই পরিস্থিতিতে সবকিছুই কার্যত বাধাগ্রস্ত হয়েছে।

সম্প্রতি পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানা গেল, করোনা পরিস্থিতিতে চাকরি বা কাজ হারিয়ে অনেক মানুষ পরিবার-পরিজন নিয়ে ঢাকা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। এছাড়া মাসিক বেতন বা দৈনিক আয় কমে যাওয়ায় উপার্জনে অক্ষম ব্যক্তি ভাড়াবাসা ছেড়ে স্ত্রী-সন্তানদের গ্রামে পাঠিয়ে দিয়ে নিজে মেসে উঠেছেন।

বিশেষ করে করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনেক পরিবারকে শহর ছেড়ে চলে যেতে হয়েছে, সে পরিবারগুলোর শিশুদের লেখাপড়ার বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

বিভিন্ন বিভাগীয় ও জেলা শহর থেকেও নিম্নআয়ের অনেক মানুষ উপার্জনহীন হয়ে গ্রামে ফিরে গেছেন। আর এ ক্ষেত্রে আলোচনায় এসেছে যে, করোনার প্রকোপ শূন্যের কোটায় নামলেও এদের সিংহভাগেরই পরিবার নিয়ে শহরে ফেরার সম্ভাবনা নেই।

মূলত এ অবস্থায় গ্রামে ফিরে যাওয়া পরিবারগুলোর শিশুসন্তানদের শিক্ষাজীবন অনেকটা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে সারা বিশ্ব এক বিপর্যস্ত ও ভয়ংকর পরিস্থিতির মুখোমুখি। এ ক্ষেত্রে বলা দরকার, পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে সেটাও অনিশ্চিত।

আপনার মতামত লিখুন :