বন্যায় প্রচন্ড ক্ষতি

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:০৬ PM, ২৩ জুলাই ২০২০

করোনা মহামারি ও তার ফলে সৃষ্ট আর্থিক সংকটের মধ্যে মৌসুমি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ত্রিমুখী মানবিক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে দক্ষিণ এশিয়া; যেখানে বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালে ৯৬ লাখের বেশি মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেডক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজের (আইএফআরসি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল বুধবার এই তথ্য জানানো হয়েছে।

সংস্থাটির মহাসচিব জাগান চাপাগাইন বলেন, বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালজুড়ে লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে, বন্যায় তাদের ঘরবাড়ি ও ফসল ধ্বংস হয়েছে। ‘প্রতিবছর মৌসুমি বন্যা হলেও এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন; বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া ভয়াবহ প্রাণঘাতী কভিড-১৯ মহামারির মধ্যে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে দেখা দিয়েছে। বন্যার কারণে এর মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় ৫৫০ জনের প্রাণহানির পাশাপাশি ৯৬ লাখের বেশি মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।’

বানে ডুবেছে ঘরবাড়ি, গবাদিপশুগুলোই এখন শেষ সম্বল। কিন্তু পশুখাদ্যের অভাবে সেগুলোও মরতে বসেছে। সরকারি হিসাবে বাংলাদেশে ২৮ লাখ ও ভারতে ৬৮ লাখ মানুষ পানিবন্দি রয়েছে। আর নেপালে বন্যার মধ্যে ভূমিধসে ১১০ জনের মৃত্যুসহ এই তিন দেশে ৫৫০ জন মারা গেছেন।

চাপাগাইন বলেন, বাংলাদেশ, ভারত, নেপালের মানুষ বন্যা, করোনাভাইরাস ও তার সহগামী জীবনযাপন এবং চাকরি হারানোর আর্থ-সামাজিক সংকটের ত্রিমুখী চাপে পিষ্ট। কৃষিজমি প্লাবিত হয়ে ফসলের ক্ষতি কভিড-১৯ মহামারিতে এর মধ্যে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত লাখ লাখ মানুষকে দারিদ্র্যের মধ্যে ঠেলে দেবে।

সংস্থাটি বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ কার্যক্রম ও উদ্ধার তৎপরতায় গত মাসে ২ লাখ ৩০ হাজারে বেশি সুইস ফ্রাঁসহ বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্টকে মোট ৮ লাখ সুইস ফ্রাঁ (৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার) দিয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :