বৈরুত বিস্ফোরণ ঘটনা

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:০১ PM, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় নষ্ট ও ভেঙে যাওয়া কাঁচের টুকরোগুলোকে রিসাইক্লিংয়ের মাধ্যমে আবারও ব্যবহার উপযোগী করে তোলা হচ্ছে। দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ত্রিপোলির বিভিন্ন কারখানায় এ কাজগুলো করা হচ্ছে।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়, স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী, বেসরকারি পরিবেশবাদী সংগঠন এবং উদ্যোক্তারা মিলে এই কাজ করছেন। তারা বৈরুতের রাস্তায় পড়ে থাকা ভাঙা কাঁচের টুকরো ও ক্ষতিগ্রস্ত জানালাগুলোর কিছু অংশ উদ্ধার করার চেষ্টা করেছেন। সেগুলো এখন ত্রিপোলির বিভিন্ন কারখানায় রিসাইক্লিংয়ের মাধ্যমে ব্যবহার উপযোগী করে তোলা হচ্ছে।

এ বিষয়ে একটি কারখানার মালিক এবং ইউনাইটেড গ্লাস প্রোডাকশন কোম্পানির (ইউনিগ্লাস) উপ-প্রধান হামোউদ বলেন, বৈরুত বিস্ফোরণের ঘটনায় নষ্ট ও ভেঙে যাওয়া কাঁচের টুকরোগুলো এখানে রয়েছে। সংগঠনের লোকেরা এগুলো এখানে নিয়ে এসেছে, যেন আমরা এটি পুনর্ব্যবহারের উপযোগী করতে পারি।

তিনি বলেন, ২০ থেকে ২২ টন কাঁচ কারখানায় আনা হয়েছিল। পরে সেগুলো ৯০০ থেকে ১২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় পোড়ানো হয়। কাঁচগুলোকে এখন চুল্লির চারপাশে কেন্দ্রীকরণ করে রাখা হয়েছে।

দিনে ২৪ ঘণ্টাই কাজ করেন জানিয়ে ওই কারখানা মালিক বলেন, আমরা দিনে ২৪ ঘণ্টা কাজ করি। কাজ থামাতে চাই না, কারণ তখন অর্থের অপচয় বেশি হবে।

পরিবেশ ইঞ্জিনিয়ারিং সংস্থা সিডার এনভায়রনমেন্টালের প্রধান নির্বাহী জিয়াড আবিচেকার জানান, তিনি এখন পর্যন্ত লেবাননে একাধিকবার কাঁচের রিসাইক্লিংয়ের উদ্যোগের নেতৃত্ব দিয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতায় বৈরুত বিস্ফোরণের পরও স্থানীয় নাগরিক-সমাজ সংস্থা এবং স্বেচ্ছাসেবীদের একটি সংস্থার সঙ্গে মিলিত হয়ে তিনি এ উদ্যোগ নেন।

আপনার মতামত লিখুন :