ব্যাংক ব্যবস্থায় সাইবার হামলা

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:২২ PM, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয় যে, উত্তর কোরিয়ার একটি হ্যাকার গ্রুপ জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ স্থানান্তর এবং এটিএম থেকে নগদ অর্থ হাতিয়ে নিতে বিশ্বের বিভিন্ন ব্যাংকে সাইবার হামলা চালাচ্ছে। এর পরই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ দেশের ব্যাংকগুলোকে সতর্ক করা হয়।

গত ২৭ আগস্ট বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে সাইবার হামলার বিষয়ে এমন সতর্কবার্তা পাওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে দেশের ব্যাংকগুলো। নিরাপত্তার স্বার্থে ব্যাংকগুলোর পক্ষ থেকে অনলাইনে লেনদেন সীমিত করা হয়। এ ছাড়া এটিএম বুথগুলোতে রাতে লেনদেন এক প্রকার বন্ধ করে দেওয়া হয়।
তবে তারেক বরকতউল্লাহ মঙ্গলবার একটি গণমাধ্যমকে বলেন, সাইবার হামলার যে চেষ্টা বিগল বয়েজ হ্যাকার গ্রুপের পক্ষ থেকে করা হয়েছিল, সেটি তারা ব্যর্থ করে দিতে সক্ষম হয়েছেন।

তিনি বলেন, হ্যাকার গ্রুপটির ম্যালওয়ারের অস্তিত্ব দেশের তিনটি ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের নেটওয়ার্কে পাওয়া যায়। তাদের লক্ষ্য ছিল মূলত ব্যাংক। তারা চেয়েছিল, ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ব্যাংকের অনলাইনে হানা দিতে। ফলে ব্যাংকারদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছিল।

সার্টের প্রকল্প পরিচালক বলেন, বিষয়টি তখন টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) জানানো হয় এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছিল। এর পর বাংলাদেশ ব্যাংকের পরামর্শে বিটিআরসির তত্ত্বাবধানে দেশের ব্যাংকগুলো পর্যাপ্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে। ফলে দেশের কোনো ব্যাংকের টাকা চুরি বা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। বর্তমানে আতঙ্কের কিছু নেই।

আপনার মতামত লিখুন :