মেজর সিনহা হত্যা মামলা

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪৯ PM, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার আসামি পুলিশের চার সদস্যকে দ্বিতীয় দফায় রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। তারা হলেন উপ-পরিদর্শক লিটন মিয়া, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন ও আবদুল্লাহ আল মামুন।

রোববার সকাল ১১টার দিকে জেলা কারাগার থেকে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়া হয়। বিষয়টি জানান জেলা কারাগারের সুপার মো. মোকাম্মেল হোসেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‍্যাবের সিনিয়র এএসপি খাইরুল ইসলাম জানান, এই পুলিশ সদস্যদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দ্বিতীয় দফায় ২৪ আগস্ট রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত চারদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে পুলিশের অপর তিন সদস্য ওসি প্রদীপ, পরিদর্শক লিয়াকত ও এএসআই নন্দদুলালকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদের মধ্যে প্রদীপকে চার দফায় ১৫ দিন এবং লিয়াকত ও নন্দদুলাল রক্ষিতকে তিন দফায় ১৪ দিন করে রিমান্ডে নেয়া হয়। লিয়াকত ও নন্দদুলাল ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেও প্রদীপ রাজি হননি। তারা সবাই এখন কারাগারে রয়েছেন। এপিবিএন এর তিন সদস্যসহ এ পর্যন্ত আটজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ড নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির ১২টি সুপারিশ সম্বলিত ৮০ পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদন সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) জমা দেয়া হবে।

শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় কক্সবাজারে হিলডাউন সার্কিট হাউজে এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য জানান তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, আমরা ঘটনার উৎস সম্পর্কে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছি। এ ধরনের ঘটনার যাতে অবতারণা না ঘটে সে ব্যাপারেও সুপারিশ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :