যুক্তরাষ্ট্রে ধেয়ে আসছে ঝড়

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৫৯ PM, ২৬ অগাস্ট ২০২০

 

টেক্সাস ও লুইজিয়ানার উপকূলে ধেয়ে আসছে হারিকেন লরা। এর মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টি পার্শ্ববর্তী ক্যারিবীয় অঞ্চলে তাণ্ডব চালিয়েছে। এর প্রভাবে এরই মধ্যে ২৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে বলে এএফপি’র খবরে বলা হয়েছে।

হ্যারিকেন লরা’র পরবর্তী গন্তব্য হতে পারে টেক্সাস ও লুইসিয়ানা।

ঘূর্ণিঝড়টির শঙ্কায় এরই মধ্যে অঙ্গরাজ্য দুটির উপকূলীয় এলাকা থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
ইউএস ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানিয়েছে, লরার গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ মাইল (১৫০ কিলোমিটার)। পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পরবর্তী চব্বিশ ঘণ্টায় এটি আরও শক্তিশালী রূপ ধারণ করতে পারে।

এনএইচসি থেকে বলা হয়েছে, “লরা ভয়াবহ মাত্রার হারিকেন হিসেবে ভূমিতে আঘাত হানতে পারে। ”

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় বুধবার রাতে টেক্সাস বা লুইসিয়ানার উপকূলে এটি আঘাত হানতে পারে। এর ফলে কোথাও কোথাও ১৪ মিটার উচ্চতা পর্যন্ত পানির ‘ধ্বংসাত্মক ঢেউয়ের’ সৃষ্টি হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে লুইসিয়ানা দক্ষিণ-পশ্চিম ও টেক্সাস দক্ষিণ-পূর্ব এলাকার ৩০ মাইল পর্যন্ত প্লাবিত হতে পারে বলে এনএইচসি’র পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট জানিয়েছেন, হারিকেন লরার ভয়াবহতার মাত্রা চতুর্থ ক্যাটাগরি পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে। তবে এটি মোকাবিলা করার জন্য সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে টেক্সাসে ২০১৭ সালে ক্যাটাগরি ৩ পর্যায়ের হারিকেন হারভে আঘাত হেনেছিল। সেবার ৬৮ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

আপনার মতামত লিখুন :