যুদ্ধ শুরু হলে ভারতের কোনও সুযোগ নেই বলে হুমকিও দিয়েছে চীন

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:২১ PM, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

যুদ্ধ শুরু হলে ভারতের কোনও সুযোগ নেই বলে হুমকিও দিয়েছে চীন।

বর্তমানে ভারতের সীমান্ত সংক্রান্ত নীতি ও পরিকল্পনাগুলি দেশের জনগণের মনোভাব ও জাতীয়তাবাদের উপর ভিত্তি করেই পরিচালিত হয় বলে উল্লেখ করেছে গ্লোবাল টাইমস।

প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, সীমান্ত সংক্রান্ত বিষয়ে ভারতের নাগরিকদের মনোভাবকে খুবই গুরুত্ব দেয় সেদেশের সরকার। ফলে দেশের সেনাবাহিনীর পরিকল্পনা অভ্যন্তরীণ জাতীয়তাবাদের দ্বারাই প্রভাবিত হয়।

চিনের সঙ্গে হওয়া সীমান্ত বিবাদের বিষয়েও দেশের জনগণের মনোভাবের দ্বারা প্রভাবিত হচ্ছে ভারত। আগ্রাসী পদক্ষেপ নিচ্ছে। তাই চিনের শান্তির মনোভাব বজায় রাখার চেষ্টাকে কাপুরুষত্ব বলে মনে করছে। কিন্তু, এটা যে কতবড় ভুল তা যুদ্ধ শুরু হলেই বোঝা যাবে।

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে শুক্রবারই বৈঠকে বসেছিলেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ওয়ে ফ্যাং। আড়াই ঘণ্টা ধরে রফাসূত্র বের করার চেষ্টা হলেও আখেরে কোনও লাভ হয়নি। উলটে বৈঠকের পরেই ফের লাল চোখ দেখাতে শুরু করছে ড্রাগন। যুদ্ধ শুরু হলে ভারতের কোনও সুযোগ নেই বলে হুমকিও দিয়েছে।

শনিবার এপ্রসঙ্গে চিনের সরকারি মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসে একটি সম্পাদকীয় প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে বেজিংয়ের তরফে দাবি করা হয়েছে, ভারতের চিনের ক্ষমতার কথা স্মরণ রাখা উচিত।
বিশেষ করে সামরিক বাহিনীর কথা। যাদের ক্ষমতা ভারতের সেনাবাহিনীর থেকে অনেক বেশি।

এমনিতে চিন ও ভারত দুটি দেশের প্রচুর ক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু, দুটি দেশের শক্তির মধ্যে চূড়ান্ত পর্যায়ের প্রতিযোগিতা হলে ভারতই হার স্বীকার করতে বাধ্য হবে। যদি কোনও সীমান্তে যুদ্ধ শুরু হয় তাহলে ভারতের জেতার কোনও সুযোগই থাকবে না।

আপনার মতামত লিখুন :