রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন।

HimeHime
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:২৪ AM, ২০ জুলাই ২০২০

যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে চরম বিপাকে । শনিবার পর্যন্ত স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এর প্রতিকারে কোন ব্যবস্থা নেয়নি। ফলে উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের ৭, ৮ এবং ৯ এই তিনটি ওয়ার্ডের বসবাসকারী মানুষ। রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নে তিস্তা নদীর প্রবল পানির তোড়ে সেতরু সংযোগ সড়ক ভেঙ্গে গেছে।

মঙ্গলবার সেতুর সংযোগ সড়কটি বন্যার পানির প্রবল তোড়ে ভেঙ্গে যায়। এলাকার বন্যার্দুগত মানুষ এমনিতেই মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় এলাকাবাসী চরম দুর্ভোগের শিকার হয়েছে। অবিরাম বর্ষণ এবং তিস্তা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় পানির প্রবল চাপে সেতুর সংযোগ সড়কটি ভেঙ্গে গেছে।

মর্ণেয়া ইউনিয়নের ভাঙ্গাগড়া, তালপট্টি, কামদেবসহ শেখপাড়া এলাকার প্রায় ৭ হাজার মানুষ যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হওয়ায় এলাকাবাসী চরম বিপাকে পড়েছে। এদিকে সেতুর সংযোগ সড়কটি ভেঙ্গে যাওয়ায় তাদের দুর্ভোগে চরমে উঠেছে।

স্থানীয়ভাবে নিজস্ব উদ্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ সেতুর সংযোগ সড়কটির সংস্কার করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মর্ণেয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোছাদ্দেক আলী আজাদ জানান, সড়ক টি ভেঙ্গে যাওয়ায় দু দিকের এলাকাবাসী সমস্যায় পড়েছে। দ্রুত এর সংস্কারের ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। তিনি এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

সেতুর সংযোগ সড়কটির দ্রুত সংস্কারের জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে এ ব্যাপারে কথা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে গঙ্গাচড়া উপজেলা প্রকৌশলী হাসানুল্লাহ জানান, গঙ্গাচড়ার অধিকাংশ সড়ক বালু মাটি দিয়ে তৈরী। সামান্য বৃষ্টি আর বন্যার পানিতে সড়ক ভেঙ্গে যায়। তাই সড়ক গুলোতে বস্তায় মাটি ভরে তা আটকানোর চেষ্টা করছি।

আপনার মতামত লিখুন :