লন্ডনে ভারতীয় সবচেয়ে পুরোনো রেস্তোরাঁ বন্ধের দিকে।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৫২ PM, ০৭ অগাস্ট ২০২০

 

১৯৩৯ সালে পূর্ব লন্ডনের হোয়াইটশ্যাপেলে হালাল রেস্তোঁরা খোলা হয়। এখানকার ইন্ডিয়ান কারি এত বছর ধরে অত্যন্ত জনপ্রিয়তা অর্জন করে। লন্ডনে বসবাসকারী ভারতীয়রা তো বটেই ইংরেজদেরও অন্যতম পছন্দের ফুড ডেস্টিনেশন হালাল রেস্তোঁরা।

পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদন জানেন রেস্তোঁরার মালিকের মেয়ে মেহনাজ। টুইট করে হালাল রেস্তোঁরাকে সাহায্য করতে আবেদন জানান তিনি।

মেহনাজ বলেন যে, তার বাবার হালাল রেস্তোঁরা কাস্টমারের অভাবে রীতিমত ধুঁকছে। যে ইন্ডিয়ান কারির জন্য এই রেস্তোঁরা প্রসিদ্ধ, তা এখনও কাস্টমারের অপেক্ষায় পথ চেয়ে আছে বলে জানান তিনি। পূর্ব লন্ডনের এই সবচেয়ে পুরনো রেস্তোঁরার প্রতি কিছু ভালোবাসা প্রদর্শন করতে সবার কাছে অনুরোধ করেন তিনি।

মহামারির প্রভাবে বন্ধ হয়ে যেতে বসেছে পূর্ব লন্ডনের সবচেয়ে পুরনো ভারতীয় রেস্তোঁরা। হালাল রেস্তোঁরা নামের ওই প্রতিষ্ঠানটি বাঁচাতে টুইট করে আবেদন জানিয়েছেন রেস্তোঁরার বর্তমান মালিকের মেয়ে মেহনাজ। তার আবেদনে অনেকে ভালো সাড়াও দিয়েছেন।

কিন্তু  করোনা  মহামারি সেই ছবিতে বদল আনে। ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ লকডাউন চলে ইংল্যান্ডেও। সংক্রমণের ভয়ে বহু মানুষই রেস্তোঁরায় গিয়ে খাওয়া দাওয়া করার অভ্যেস ত্যাগ করেন। ফলে ক্রমাগত ক্ষতির মুখে বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকিতে পরে পূর্ব লন্ডনের সবচেয়ে পুরনো ভারতীয় রেস্তোঁরা।

সঙ্গে রেস্তোঁরার ভেতরের দুটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। একটি ৭০-এর দশকে রেস্তোঁরার একটি চেয়ারে বসে মেহনাজের দাদার ছবি। তার নীচে ওই রেস্তোঁরার প্রায় একই জায়গায় একই পোজে বসা মেহনাজের বাবার বর্তামান ছবি। তার দাদার আমল থেকে বাবার আমলে এসে রেস্তোঁরার অন্দরসজ্জায় কিছু বদল হয়েছে বলে ছবি দু’টিতে দেখা যাচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :