শেরপুরে বন্যা পরিস্থিতিতে জনদুর্ভোগ চরমে।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:২৪ PM, ২৩ জুলাই ২০২০

শেরপুর জেলায় বন্যা পরিস্থিতিতে কিছুটা উন্নতি হলেও কমেনি জনদুর্ভোগ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অনেক এলাকা। টানা বর্ষনের কারণে দুর্ভোগ আরো বেড়েছে। বিভিন্ন সড়কের উপরে পানি থাকায় জনসাধারণকে চলাচলে অবর্ণনীয় দূর্ভোগে পোহাদে হচ্ছে।

জেলায় পানি কমতে শুরু করলেও এখনও চালু হয়নি উত্তারাঞ্চলের সাথে শেরপুরের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। গত এক সপ্তাহ যাবৎ বন্ধ রয়েছে এ সড়কে যানচলাচল। এখনও পানি বন্দি অধিকাংশ এলাকায় ত্রাণ পৌছেনি। বন্যায় জেলায় এ পর্যন্ত দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রানের জন্য ৭শ মেট্রিকটন চাল ও ১০ লক্ষ টাকা চেয়ে ত্রান ও দুর্যোগ মন্ত্রনালয়ে চাহিদা পাঠানো হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় শেরপুর জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হয়েছে। কিন্তু পানিবন্দি হাজার হাজার মানুষের দুর্ভোগ আরো বেড়েছে।

টানা বর্ষনের কারণে দুর্ভোগ আরো বেড়েছে। গত ২৪ঘন্টায় শেরপুর জেলায় গড় ৮৬.৪ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী বৃষ্টি হয়েছে ঝিনাইগাতী উপজেলায় ১শ ৩২ মি.মি.। যা এ মওসুমে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত।

গো খাদ্যের অভাব দেখা দিয়েছে বন্যা দুর্গত এলাকায়। এ পর্যন্ত বন্যার্তদের জন্য ৮৫ মেট্রিক টন খয়রাতি চাল ও ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা বরাদ্ধ প্রদান করা হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।

আপনার মতামত লিখুন :