হোল্ডার-গ্যাব্রিয়েলদের ইতিহাস ছোয়ার গল্প

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৩১ PM, ২৪ জুলাই ২০২০

 

ই সিরিজ দিয়েই করোনাকালের লকডাউন ভেঙে মুক্তির স্বাদ পেয়েছিল ক্রিকেট। ‘বায়ো-সিকিউর’ মাঠ, দর্শকশূন্য গ্যালারি, বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধসহ ‘নিউ নরমাল’ পরিস্থিতির নয়া সব নিয়মের কারণে ইতিহাসে আলাদা হয়ে থাকবে এই সিরিজ। এই সিরিজ দিয়ে ক্রিকেট যুক্ত হয়েছে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ শীর্ষক বর্ণবাদী আন্দোলনের সঙ্গেও। এমন একটি সিরিজ জিতে ইতিহাসের অংশ হতে কে না চাইবে? তিন টেস্টের সিরিজে এখন ১-১ সমতা।

তৃতীয় টেস্টটি ড্র করলেই সিরিজের মালিকানার স্মারক উইজডেন ট্রফির দখল থাকবে হোল্ডার-গ্যাব্রিয়েলদের হাতে। গত বছর নিজেদের মাঠে সিরিজ জিতে এই উইজডেন ট্রফির দখল নিয়েছিল তারা। মালিকানা পুনরুদ্ধারে সিরিজ জয় ভিন্ন পথ নেই ইংরেজদের সামনে। সঙ্গে ক্যারিবীয়দের কাছে দেশের মাটিতে ৩২ বছর অপরাজেয় থাকার পরম্পরা ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ তো থাকছেই। সিরিজটিকে দুই অলরাউন্ডারের লড়াই হিসেবেও বর্ণনা করা যায়। সাউদাম্পটনে সফরকারীদের জয়ে উজ্জ্বল ছিলেন অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। আর ওল্ড ট্র্যাফোর্ড রাঙিয়েছেন বেন স্টোকস। ব্যাটে-বলে নৈপুণ্য দেখিয়ে দলকে জেতানোর পাশাপাশি টেস্ট অলরাউন্ডারদের র‌্যাংকিংয়েও হোল্ডারকে হঠিয়ে শীর্ষস্থানটির দখল নিয়েছেন স্টোকস। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আবারও কি স্টোকস নায়ক হয়ে উঠবেন? নাকি অন্য কেউ রাজত্ব করবেন! এই যখন পরিস্থিতি তখন একাদশ নির্বাচনে ইংল্যান্ড পড়েছে দোটানায়। ‘বায়ো-সিকিউর’ নিয়ম ভেঙে গত টেস্ট মিস করা জোফরা আর্চার স্কোয়াডে ফিরে এলেও তাকে একাদশে নেওয়ার বিষয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভুগছেন ইংলিশ কোচ ক্রিস সিলভার উড। যদিও তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, অভিজ্ঞ পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের সঙ্গে আর্চারকে নেওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তাদের সঙ্গে দেখা যেতে পারে গত টেস্টে দারুণ বোলিং করা স্টুয়ার্ট ব্রডকে। তবে ক্রিস ওকস, মার্ক উড ও স্যাম কারেনকেও এত সহজে বাদ দিতে পারছেন না কোচ। উইন্ডিজ অবশ্য দোটানায় নেই, তারা টপ অর্ডারের জন ক্যাম্পবেল ও শাই হোপের ফর্ম নিয়ে বেশ চিন্তায় আছেন। এ ছাড়া প্রথম টেস্টে বিধ্বংসী বোলিং করা শ্যানন গ্যাব্রিয়েল গত ম্যাচে ছিলেন বিবর্ণ।

আপনার মতামত লিখুন :