১৭ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক।

Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:১৩ PM, ০৫ অগাস্ট ২০২০

 

করোনা দুর্যোগ-পরবর্তী খাদ্যশস্যের সংকট মোকাবেলায় সরকারের ত্রাণ ভান্ডারের রিজার্ভ বাড়ানো হবে এবং খাদ্যশস্য সংরক্ষণ ব্যবস্থাপনার জন্য একটি অনলাইন ফুড স্টক অ্যান্ড মার্কেটিং মনিটরিং সিস্টেম (এফএসএমএমএন) করা হবে। পাশাপাশি এতে কর্মসংস্থানও হবে, বিশেষ করে নারীরা কাজের সুযোগ পাবেন।

রোববার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তারা জানায়, গত ৩১ জুলাই বিশ্বব্যাংকের নির্বাহী পরিচালকদের বোর্ড এ ঋণ অনুমোদন করেছে। মডার্ন ফুড স্টোরেজ ফ্যাসিলিটিস প্রজেক্টের আওতায় এ ঋণ দেওয়া হবে। ৫ বছর গ্রেস দিয়ে এ ঋণ ৩০ বছরে পরিশোধ করতে হবে বাংলাদেশকে।

৪৫ লাখ পরিবারের জন্য ৫ লাখ ৩৫ হাজার ৫০০ টন খাদ্যশস্য মজুদ করতে বাংলাদেশ সরকারকে ১ হাজার ৭১৭ কোটি (২০২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। করোনা দুর্যোগ-পরবর্তী খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এ ঋণ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভুটানে নিযুক্ত বিশ্বব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কান্ট্রি ডিরেক্টর মোহাম্মদ আনিস বলেন, বাংলাদেশের প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষ গ্রামে বাস করে, যাদের জীবন-জীবিকা, খাদ্য নিরাপত্তা জলবায়ু পরিবর্তনজনিত প্রাকৃতিক দুর্যোগের শিকার ও হুমকির মুখে রয়েছে।

কার্যকর বিপণন পদ্ধতিসহ খাদ্যশস্য সংরক্ষণের এই আধুনিক পদ্ধতি করোনা দুর্যোগ পরবর্তী খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করবে।

আপনার মতামত লিখুন :