Samia RahmanSamia Rahman
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৩২ PM, ২২ অগাস্ট ২০২০

 

যুক্তরাষ্ট্রে বেড়াতে গিয়ে সূর্যমুখী ফুলের বাগানে তোলা ছবিটি ছিল আলায়নার নিজের। ইনস্টাগ্রাম থেকে এই ছবি মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও।

ফেসবুকের বিভিন্ন পেজে এই ছবিটি পোস্ট হতে থাকে। ফেসবুক ব্যবহারকারীরা এই ছবিতে বিভিন্ন মন্তব্য করতে থাকেন, যার মধ্যে অধিকাংশই ছিল আলায়নার প্রশংসা করে। অসংখ্য মন্তব্যের মধ্যে মাত্র চার-পাঁচটি মন্তব্য ছিল খুবই বাজে।

এই বাজে মন্তব্যগুলোর স্ক্রিনশট দ্রুতবেগে ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। বাজে মন্তব্যকারীদের সমালোচনা করথে থাকেন সবাই। এর মধ্যে সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির এই ঘটনা নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। তার ভাষ্যমতে, এতএত ভক্ত-অনুসরণকারীদের মধ্যে থেকে এমন ঘটনা তাদের বিচলিত করে না।

শিশির জানিয়েছেন, এ বাজে মন্তব্যকারীদের পেছনের ঘটনা জানতে উচ্চতর কর্তৃপক্ষ কাজ করছে। এদিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ক্রাইম ইউনিট থেকে জানানো হয়েছে বিকৃত মন্তব্যকারীদের ধরতে পুলিশ কাজ করছে।

শিশির তার স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘কী ঘটছে তা সম্পর্কে আমি অবগত ছিলাম না। কারণ এসব আমাদের বিরক্ত করে না। পাবলিক ফিগার হিসেবে আমাদের অনেক ভক্ত, অনুসারী, শুভাকাঙ্ক্ষী ও খারাপ চাওয়া মানুষ রয়েছে। এটা একটা প্যাকেজ বলা যায়, অবশ্যই আমরা সবসময় আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকি, এটা ভালো ব্যাপার।’

তিনি আরও লেখেন, ‘বিশ্বজুড়ে বহু তারকাদেরই বাজে পরিণতির মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু অন্যান্য দেশে প্রতিবাদের জন্য হাজারটা ভালো মন্তব্যের ভিড়ে ৪-৫টি বাজে মন্তব্য আমলে নিতে ফোন হাতে বসে থাকার সময় থাকে না। আক্ষরিক অর্থে পুরো ব্যাপারটি ঘটেছে হাজারটা ভালো মন্তব্যের মধ্যে ৪ টি বাজে মন্তব্যের উপর ভিত্তি করে।

এর পেছনের কারণ জানতে উচ্চতর কর্তৃপক্ষ কাজ করছে জানিয়ে শিশির লেখেন, উচ্চ কর্তৃপক্ষ এটা নিয়ে কাজ করছে। চলেন আপনার পেইজের কিছু প্রচার করুন! কিছুই আমাদের উদ্দেশ্য ও জীবনযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করবেনা। কারণ এসব সামান্য ব্যাপার আমাদের বিচলিত করেনা কোনভাবেই। প্রতিবাদ করতে চাইলে কার্যকর কোন কিছুর প্রতিবাদ করুন। সময় নষ্ট হওয়ার মত মন্তব্যগুলো দেখতে আমার ছবিতে বসে থাকবেন না।

আপনার মতামত লিখুন :