কঙ্গনা রানাওয়াতকে সুরক্ষা দেওয়ায় ফুসে উঠেছে শিবসেনা।

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:১৮ PM, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

মুম্বইকে অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করা, খাকি উর্দির মুম্বই পুলিশকে মাফিয়া বলা নীচ মানসিকতার পরিচয়। মহারাষ্ট্রের ১১ কোটি মারাঠি ও মুম্বইয়ের অপমান। দেশদ্রোহিতার শামিল।

এই অপরাধ করছেন যাঁরা, মোদি সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছে। স্বাধীনতার পর মুম্বইকে মহারাষ্ট্রের রাজধানী করার জন্য ১০৮ জন শহিদ হয়েছেন। মোদি সরকারের কাণ্ডজ্ঞান দেখে তাঁরাও স্বর্গে চোখের জল ফেলবেন।

কেউ উদ্ধত হয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানালে গোটা মহারাষ্ট্র ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ করবে। বিজেপি খোলাখুলি মুম্বই ও মহারাষ্ট্র সরকারের অপমানকারীদের মদত দিচ্ছে।

কঙ্গনা রানাওয়াতকে সুরক্ষা দেওয়ায় ফুসে উঠেছে শিবসেনা। বলেছে, মুম্বইয়ের অবমাননাকারীদের সুরক্ষা দেওয়া দুভার্গ্যজনক। এই সুরক্ষা দেওয়ার তৎপরতা সীমান্তে দেখানো উচিত। কাজের কাজ হবে। লাদাখ ও অরুণাচল প্রদেশ সীমান্তে দেশকে তাহলে লাঞ্ছিত হতে হয় না।

দলীয় মুখপত্র সামনায় শিবসেনা লিখেছে, অভিনেত্রী অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করে মুম্বইয়ের অপমান করেছেন। তাঁকে সুরক্ষা দেওয়ার মতো দুর্ভাগ্যজনক সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদি সরকার।

উদ্ধব ঠাকরের দল আরও বলেছে, ‘মুম্বই মুম্বা দেবীর পূজারী। কোলি সম্প্রদায়ের মুঙ্গা নামের একজন মুম্বা দেবীর প্রতিঠাতা। তাঁর নামের সামনে রয়েছে ‘‌মুঙ্গাচি আই’‌ ও ‘‌মহা আম্বাই’‌। অনেকে বলেন মুম্বই মৃন্ময়ীর এক রূপ।