উদ্ধব প্রশাসনের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ চান কঙ্গনা রানাউত।

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:০৭ PM, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

বৃহস্পতিবার রাতেই টুইট করে কঙ্গনা জানিয়েছেন যে, গত ১৫ জানুয়ারি নতুন অফিসের উদ্বোধন করেছেন তিনি। করোনা আবহে কাজ বন্ধ থাকায় সবার মতো তিনিও লোকসানের মুখ দেখছেন।

অতঃপর বর্তমানে এহেন আর্থিক সমস্যায় অফিস পুনর্নির্মাণ করার মতো অর্থ তাঁর নেই। তাই একপ্রকার হুংকার দিয়েই তাঁর মন্তব্য, ভাঙা অফিস এরকমই থাকবে। ঠিক করব না। ধ্বংসস্তূপ রেখে দেব চিহ্ন স্বরূপ।

অন্যদিকে, টুইটারে যেন কিছুতেই থামতে চাইছেন না রণংদেহি কঙ্গনা! শুক্রবার সকালেই বালা সাহেব ঠাকরে প্রসঙ্গ টেনে এনে ফের শিব সেনাকে আক্রমণ করেছেন।

কঙ্গনার মন্তব্য, বালা সাহেব ঠাকরের সবথেকে বড় ভয় ছিল কোনও দিন না তাঁর দল শিব সেনা জোটবেঁধে কংগ্রেসে পরিণত হয়! আজ দলের এই পরিস্থিতি দেখে উনি কী ভাবতেন? সেটাই জানতে চাইছি।

ভাঙা অফিস পুনরায় গড়ে তোলার টাকা নেই। তাই উদ্ধব প্রশাসনের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ চান কঙ্গনা রানাউত। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আঠাওয়ালে। বলিউড অভিনেত্রীর সঙ্গে দেখা করে একথা জানিয়েছেন। এদিন আঠাওয়ালে কঙ্গনার বাড়িতে গিয়ে দেখা করে এসেছেন।

অভিনেত্রীর বাড়ি থেকে বেরিয়েই রামদাস জানান, ১ ঘণ্টা কঙ্গনার সঙ্গে কথা হয়েছে। ওঁকে আশ্বস্ত করেছি যে, আমাদের দল ওঁর পাশে রয়েছে। বাণিজ্যনগরী মুম্বইতে ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই। এখানে বাস করার সবার সমান অধিকার রয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে কথা প্রসঙ্গেই কঙ্গনা জানিয়েছেন যে বম্বে হাই কোর্টে তিনি বৃহন্মুম্বই পুরসভার কাছে থেকে ক্ষতিপূরণের আবেদন জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, রামদাস আঠাওয়ালে কঙ্গনা রানাউতকে বিজেপিতে স্বাগতও জানিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।